সংক্রমণ রোধে পশ্চিমবঙ্গে বন্ধ লোকাল ট্রেন, মল, রেস্তোরাঁ, বার

প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েই করোনা রুখতে একগুচ্ছ ব্যবস্থা নিলেন মমতা ব্যানার্জি। বন্ধ লোকাল ট্রেন, শপিং মল, রেস্তোরাঁ, বার।

করোনা রুখতে পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন ঘোষণা করেননি মমতা ব্যানার্জি। তবে একগুচ্ছ ব্যবস্থার কথা ঘোষণা করেছেন। রাজ্যে ৫০ জনের বেশি মানুষের জমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সরকারি অফিসে অর্ধেক কর্মী আসবেন। সরকারি পরিবহন অর্ধেক চলবে। তবে লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকবে। সকলকে মাস্ক পরতে হবে।

বাইরের রাজ্য থেকে পশ্চিমবঙ্গে এলে ১৪ দিন কোয়ারান্টিনে থাকতে হবে। পুরোপুরি বন্ধ থাকবে শপিং মল, রোস্তোরাঁ, বার, সুইমিং পুল, বিউটি পার্লার। তবে বিয়ের মরশুম বলে গয়নার দোকান খোলা থাকবে। সেটাও দুপুর ১২টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত। বাজারগুলো সকাল ৭টা থেকে ১০টা এবং বিকেল ৫টা থেকে ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। ব্যাঙ্কগুলো সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে একটি চিঠিও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার শপথ নেয়ার পরই নবান্নে গিয়ে করোনা নিয়ে কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠকে বসেন মমতা। তারপর এই ঘোষণা করা হয়।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে চার লাখ ১২ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন তিন হাজার ৯৮০ জন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশের ৩০টি জেলায় গত দুই সপ্তাহ ধরে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সমানে বাড়ছে। তার মধ্যে ১০টি জেলা দক্ষিণ ভারতে।

মহারাষ্ট্রে এখনো সব চেয়ে বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। তাছাড়া কেরালা, কর্ণাটক, তামিলনাড়ু, উত্তর প্রদেশে করোনা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ, বিহার ও ঝাড়খণ্ডে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।

সূত্র : ডয়েচে ভেলে