ঈদের আগেই চীন থেকে ভ্যাকসিন পাচ্ছে বাংলাদেশ

প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন মঙ্গলবার বলেছেন, ঈদুল ফিতরের আগেই ভ্যাকসিন ডেলিভারি দিতে চীনা সরকার কাজ শুরু করেছে।

তিনি বলেন, ঢাকায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং সম্প্রতি জানিয়েছেন যে ভ্যাকসিন ঈদের আগেই ঢাকায় আসা শুরু করবে। অন্যদিকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক নির্দিষ্ট করে জানিয়েছেন ১০ মে ভ্যাকসিন আসবে।

 স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে চীন ও রাশিয়ার সংযোগ স্থাপন করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় উল্লেখ করে ড. মোমেন বার্তা সংস্থা ইউএনবিকে বলেন, ‘কখন এবং কত ডোজ টিকা কীভাবে আসবে তা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেবে। তারা জানে কখন এটা আমাদের দরকার।’

মন্ত্রী বলেন, চীনে ৫ দিনের মে দিবসের ছুটি চলছে যা ৫ মে শেষ হবে। এই ছুটির কারণে চীনে সবকিছু বন্ধ থাকবে।

ভ্যাকসিন পেতে রাশিয়া ও আমেরিকার সাথে যোগাযোগ চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অর্ডারের ভিত্তিতে ভ্যাকসিন উৎপাদন হওয়ায় কিছু সময় লাগবে।’

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোববার বলেছেন, করোনাভাইরাস থেকে জনগণকে রক্ষায় সরকার যেকোনো মূল্যে ভ্যাকসিন সংগ্রহ করবে। ‘আমরা আরো ভ্যাকসিন আনছি, কত টাকা লাগবে সেটা কোনো বিষয় নয়।’

বাণিজ্যিকভাবে বিক্রি ছাড়াও চীন ৫ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন উপহার হিসেবে বাংলাদেশকে সরবরাহ করবে।