যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার পাল্টাপাল্টি বহিষ্কার নিষেধাজ্ঞা

প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

সাইবার হামলা ও অন্যান্য বিদ্বেষমূলক কাজের জন্য রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছে বাইডেন প্রশাসন। গতকাল শুক্রবার বিবিসি জানায়, এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকবে ডজন খানেক রুশ কর্মকর্তা ও সংস্থা। এ ছাড়া বাইডেনের সই করা নির্বাহী আদেশে রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র থেকে ১০ কূটনীতিককে বহিষ্কারের কথা রয়েছে। এদিকে পালটা ব্যবস্থা হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের ১০ কূটনীতিককে রাশিয়া ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে মস্কো। যুক্তরাষ্ট্রের নিযুক্ত রাশিয়ার ১০ কূটনীতিককে মার্কিন সরকার বহিষ্কার করার পর মস্কো পাল্টা এই ব্যবস্থা নিল। মার্কিন রাষ্ট্রদূতকেও দেশে ফিরে যেতে হবে বলে জানিয়েছে রাশিয়া।

শুক্রবার রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে ১০ মার্কিন কূটনীতিককে বহিষ্কারের কথা জানায়। পাশাপাশি আমেরিকার সাবেক ও বর্তমান আটজন কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। 

এর আগে রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা ও ১০ রুশ কূটনৈতিককে বহিষ্কারের বিষয়ে হোয়াইট হাউস থেকে জানানো হয়, ‘রাশিয়ার ক্ষতিকর বৈদেশিক কর্মকাণ্ড’ প্রতিরোধ করার লক্ষ্যে এই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সই করা এক নির্বাহী আদেশে এই নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেওয়া হয়। দুই দেশের মধ্যে চলমান উত্তেজনার মধ্যে এই নতুন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা এল।

নিষেধাজ্ঞা ঘোষণার খানিক পরেই রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একে ‘শত্রুতামূলক ব্যবস্থা’ হিসেবে অভিহিত করেছে। এটি ‘সংঘাতকে আরও বাড়িয়ে দেবে’ বলেও উল্লেখ করেন তারা। এরই প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্রের ১০ কূটনৈতিককে রাশিয়া থেকে বহিষ্কারের ঘোষণা দেয় তারা। 

একই সঙ্গে রাশিয়ায় মার্কিন ফান্ড এবং এনজিও কার্যক্রমের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। রুশ সরকার মনে করে এসব এনজিওর মাধ্যমে রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ বিষয়ে ওয়াশিংটন হস্তক্ষেপ করে থাকে।