বিবিসির প্রতিবেদন

অসুস্থতার ঝুঁকি ৮০ শতাংশ কমিয়ে আনছে করোনার টিকা

প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনা টিকার এক ডোজই অসুস্থতার ঝুঁকি ৮০ শতাংশের বেশি কমিয়ে আনে বলে বলে জানিয়েছে ইংল্যান্ডের একটি গবেষণা।

সোমবার (১ মার্চ) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিবিসি জানিয়েছে, ‘পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড’-এর করা একটি গবেষণার ফলাফলে দেখা গেছে ফাইজারের করোনা টিকা নেওয়ার তিন বা চার সপ্তাহ পর থেকে মানবদেহে এই কার্যকারিতা দেখা যায়। 

গবেষণায় আরও দেখা গেছে, যাদের বয়স ৮০ বছরের বেশি, তারা করোনা টিকার প্রথম ডোজ নেওয়ার পরেই এই কার্যকারিতার ফলাফল দেখা গেছে।

এর আগে গেল সপ্তাহে স্কটল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিভাগও একই ধরনের ফলাফল পাওয়ার কথা জানায়। তারা সেসময় এই ফলাফলকে ‘দর্শনীয়’ বলেও উল্লেখ করে।

সোমবার ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, করোনা টিকা নিয়ে সর্বশেষ গবেষণার এই ফল ‘খুবই শক্তিশালী’। 

তিনি বলেন, ‘গত কয়েক সপ্তাহে ৮০ বছরের বেশি বয়সীদের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তির সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হারে হ্রাস পেয়েছে।’

ওই সম্মেলনে ইংল্যান্ডের ডেপুটি চিফ মেডিকেল অফিসার অধ্যাপক জনাথন ভ্যান টাম বলেন, আমরা সম্ভবত আগামী কয়েক মাসের মধ্যে আলাদা একটি বিশ্বে যাচ্ছি, কারণ করোনা টিকার ফলাফল এমনই ইঙ্গিত দিচ্ছে। কিন্তু করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজও গুরুত্বপূর্ণ এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষার অংশ বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এখন পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে ২০ মিলিয়নেরও বেশি মানুষ করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন। যা দেশটির মোট প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের এক-তৃতীয়াংশের বেশি।

এদিকে, বিশ্বব্যাপী করোনার তাণ্ডব থামছে না। চলছে দ্বিতীয় ঢেউ। করোনার টিকা আবিষ্কার হলেও এখনো স্বস্তিতে নেই বিশ্ববাসী। এরই মধ্যে করোনায় বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১১ কোটি ৪৯ লাখ এবং মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৫ লাখ ৪৯ হাজার।