এক মুলার ওজনই সাড়ে ৮ কেজি!

প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

রাজশাহীর বাঘায় অবসরপ্রাপ্ত কলেজশিক্ষক হাফিজুর রহমান বুল্লার জমিতে ৮ কেজি ৫৭ গ্রাম ওজনের একটি মুলা পাওয়া গেছে।

শনিবার সকালে কলেজশিক্ষক তার জমি থেকে মুলাটি তুলে নিয়ে এসে ওজন করেন। পরে তিনি তার নিজ গ্রামের মোড়ে নিয়ে গেলে দেখার জন্য উৎসুক জনতা ভিড় করতে থাকেন।

জানা যায়, উপজেলার আড়ানী ইউনিয়নের সোনাদহ গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত কলেজশিক্ষক হাফিজুর রহমাম বুল্লার শখের বসে বাড়ির পাশে নিজ জমিতে কিছু মুলার চাষ করেন। অন্যগুলো তুলে খেয়ে নিলেও এই ৮ কেজি ৫৭ গ্রাম ওজনের একটি মুলা তিনি আলাদাভাবে পরিচর্যা করেন। 

শনিবার সকালে জমি থেকে উঠিয়ে ওজন দিয়ে দেখেন তার ওজন হয়েছে ৮ কেজি ৫৭ গ্রাম। হাফিজুর রহমাম বুল্লার আড়ানী ডিগ্রি কলেজের মনোবিজ্ঞান বিষয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক।

হাফিজুর রহমাম বুল্লার বলেন, আমি ছোট থেকে নিজের জমিতে অন্যান্য সবজির আবাদ করি। তার সঙ্গে মুলার আবাদ করা হয়। গত বছর থেকে বাড়ির পাশে মুলার আবাদ শেষে জমিতে একটি-দুইটি রেখে বিশেষভাবে যত্ন নিয়ে থাকি। এত বড় আকারের মুলা হতে পারে এটা আমার জানা ছিল না। 

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিউল্লাহ সুলতান বলেন, মুলাটির বিষয়ে শুনেছি। বিশেষ পরিচর্যা নিলে ও জমির উর্বরতা বেশি থাকলে কোনো কোনো সময় এমন মুলা হতে পারে।